ফিউচার মার্কেটে ঊর্ধ্বমুখী মালয়েশিয়ান পাম অয়েলের দাম

3

ফিউচার মার্কেটে ঊর্ধ্বমুখী হয়ে উঠেছে মালয়েশিয়ান পাম অয়েলের দাম। এর প্রধান কারণ সয়াবিন তেলের মূলবৃদ্ধি। পাশাপাশি বায়োডিজেল তৈরিতে চাহিদা বৃদ্ধিও এক্ষেত্রে রসদ জুগিয়েছে। খবর বিজনেস রেকর্ডার।

বুরসা মালয়েশিয়া ডেরিভেটিভস এক্সচেঞ্জে শুক্রবার পাম অয়েলের দাম ৬১ রিঙ্গিত বা ১ দশমিক ৪৭ শতাংশ বেড়েছে। প্রতি টনের মূল্য স্থির হয়েছে ৪ হাজার ১৯৭ রিঙ্গিতে (৮৮৮ ডলার ৭২ সেন্ট)। শিকাগো বোর্ড অব ট্রেডে শুক্রবার সয়াবিন তেলের দাম দশমিক ৯৫ শতাংশ বেড়েছে।

মুম্বাইভিত্তিক ভোজ্যতেলের ব্রোকার প্রতিষ্ঠান সানবিন গ্রুপের গবেষণা বিভাগের প্রধান অনিল কুমার বাগানি জানান, ‘সয়াবিন তেলের বাজারদরে ঊর্ধ্বমুখী প্রবণতা পাম অয়েলের বাজারকে প্রভাবিত করেছে। শিল্পসংশ্লিষ্টরা বর্তমানে মালয়েশিয়ায় পাম অয়েল উৎপাদন ও রফতানির তথ্য প্রকাশের অপেক্ষায় আছেন।

আন্তর্জাতিক বাজারে ভোজ্যতেলের মধ্যে সবচেয়ে বেশি বাণিজ্য হয় পাম অয়েলের। বিপুল সরবরাহ ও প্রতিদ্বন্দ্বী অন্যান্য তেলের তুলনায় সাশ্রয়ী হওয়ায় ব্যবসায়ীদের কাছে এর কদর বেশি। কিন্তু সাম্প্রতিক সময়ে সয়াবিন ও সূর্যমুখী তেলের সরবরাহ বাড়ার পাশাপাশি দাম কমে যাওয়ায় পাম অয়েলের চাহিদা কমছে। পাম অয়েল ক্রেতারা দামের সুবিধা নিতে প্রতিদ্বন্দ্বী এসব তেলের বাজারে ঝুঁকছেন। এতে পণ্যটির মূল্য পুনরুদ্ধার ব্যাহত হবে বলে আশঙ্কা করছেন বিশ্লেষকরা।