জেলেনস্কি কার্যালয়ের উপপ্রধানের পদত্যাগ

4

ইউক্রেনের প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির কার্যালয়ের উপপ্রধান কিরিলো টিমোশেঙ্কো মঙ্গলবার তার পদত্যাগ ঘোষণা করেছেন। টিমোশেঙ্কোর পদত্যাগ গ্রহণের একটি ডিক্রি প্রেসিডেন্টের ওয়েবসাইটে প্রকাশিত হয়েছে।

টিমোশেঙ্কো টেলিগ্রাম মেসেজিং অ্যাপে এক বার্তায় পদত্যাগের ঘেষণা দিয়ে বলেন, আমি ইউক্রেনের জন্য প্রতিদিন এবং প্রতি মিনিটে ভাল কাজ করার সুযোগের জন্য প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কিকে বিশ্বাস এবং ধন্যবাদ জানাই।

৩৩ বছর বয়সী টিমোশেঙ্কো ২০১৯ সাল থেকে প্রেসিডেন্টের কার্যালয়ের উপ-প্রধানের পদে অধিষ্ঠিত ছিলেন, অঞ্চল এবং আঞ্চলিক নীতিগুলো তদারকি করেছিলেন। জেলেনস্কির নির্বাচনী প্রচারণার সময়, তিনি মিডিয়া এবং সৃজনশীল বিষয়বস্তু তদারকি করতেন।

যদিও টিমোশেঙ্কো পদত্যাগের আনুষ্ঠানিক কারণ দেননি। তবে ইউক্রেনীয় মিডিয়া জানিয়েছে, তার ক্ষমতাচ্যুতি জেলেনস্কি নেয়া দেশটিতে দুর্নীতির বিরুদ্ধে পদক্ষেপের অংশ হতে পারে।

ইউক্রেনীয় মিডিয়ার মতে, রুশ আগ্রাসনের শুরু থেকেই টিমোশেঙ্কো তার ব্যক্তিগত ব্যয়বহুল গাড়ি ব্যবহারের সাথে সম্পর্কিত বেশ কয়েকটি কেলেঙ্কারিতে জড়িয়ে পড়েছেন। যদিও তিনি সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন।

রাশিয়ার সাথে চলমান দ্বন্দ্বের মধ্যে কিয়েভে একটি দুর্নীতি কেলেঙ্কারির আবির্ভাব ঘটে, যার ফলে রোববার জেলেনস্কির প্রশাসন থেকে একজন সিনিয়র সরকারি কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করা হয়।

জেলেনস্কি সোমবার বলেছেন, তিনি এই সপ্তাহে বিষয়টি তুলে ধরবেন এবং সমস্যাটি উপড়ে ফেলার জন্য মূল সিদ্ধান্ত নেয়া হবে। সরকার, অঞ্চল এবং নিরাপত্তা বাহিনীতে এই সপ্তাহে আরও পরিবর্তন আশা করা হচ্ছে।

উল্লেখযোগ্যভাবে, জেলেনস্কি নিশ্চিত করেছিলেন, তিনি একজন উপমন্ত্রীর পদত্যাগপত্র গ্রহণ করেছেন কিন্তু সে কে বা তার বিরুদ্ধে কী অভিযোগ করা হয়েছিল তা উল্লেখ করেননি জেলেনস্কি।

অন্যদিকে ইউক্রেনের প্রধানমন্ত্রী ডেনিস শ্যামিহাল এর আগে সম্প্রদায়, অঞ্চল ও অবকাঠামো উন্নয়নের উপমন্ত্রী ভ্যাসিল লোজিনকিকে বরখাস্ত করার ঘোষণা করেছিলেন।

সূত্র: রয়টার্স