ডাচ্-বাংলা ব্যাংকের ২৫তম বার্ষিক সাধারণ সভা অনুষ্ঠিত

20

ডাচ্-বাংলা ব্যাংক লিমিটেডের ২৫তম বার্ষিক সাধারণ সভা ব্যাংকের চেয়ারম্যান সায়েম আহমেদের সভাপতিত্বে সোমবার (২৬ এপ্রিল) ভার্চুয়াল প্লাটফর্মের মাধ্যমে অনুষ্ঠিত হয়। বার্ষিক সাধারণ সভার শুরুতে চেয়ারম্যান তার সংক্ষিপ্ত বক্তব্যে শেয়ারহোল্ডারদের শুভেচ্ছা জানান।

বিপুল সংখ্যক শেয়ারহোল্ডার ভার্চুয়াল প্লাটফর্মের মাধ্যমে ব্যাংকের বার্ষিক সাধারণ সভায় অংশগ্রহণ করেন। বার্ষিক সাধারণ সভায় শেয়ারহোল্ডাররা ২০২০ সালের জন্য ৩০% ডিভিডেন্ড (১৫% ক্যাশ ডিভিডেন্ড এবং ১৫% স্টক ডিভিডেন্ড) প্রদানের অনুমোদন দেন।

২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বর অনুযায়ী ব্যাংকের নিরীক্ষিত বার্ষিক আর্থিক বিবরণী সভায় উত্থাপন করা হয়। শেয়ারহোল্ডারগণ ব্যাংকের ২০২০ সালের কার্যক্রম নিয়ে তাদের অভিমত ব্যক্ত করেন এবং নানাবিধ বিষয়ে প্রস্তাবনা পেশ করেন।

২০২০ সালের ৩১ ডিসেম্বর পর্যন্ত ব্যাংকের মোট সম্পদের পরিমাণ দাঁড়িয়েছে ৪ লাখ ৭২ হাজার ৩৫৫.৪ মিলিয়ন টাকা যা পূর্ববর্তী বছরে ছিল ৩ লাখ ৯০ হাজার ৩৬২ মিলিয়ন টাকা। যার প্রবৃদ্ধির পরিমাণ দাঁড়ায় ৮২.০ মিলিয়ন টাকা বা ২১.০%। ২০২০ সালে ব্যাংক থেকে দেওয়া ঋণের পরিমাণ ২ লাখ ৭৩ হাজার ৩৮২.৯ মিলিয়ন টাকা যা পূর্ববর্তী বছরে ছিল ২ লাখ ৫৬ হাজার ২৩৯.৭ মিলিয়ন টাকা। যার প্রবৃদ্ধির হার দাঁড়ায় ৬.৭%। ২০২০ সালে ব্যাংকের ডিপোজিট ৬০ হাজার ৪৫১.৮ মিলিয়ন টাকা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৩ লাখ ৬২ হাজার ৬১১.০ মিলিয়ন টাকা যা পূর্ববর্তী বছরে ছিল ৩ লাখ ২ হাজার ১৫৯.২ মিলিয়ন টাকা। যার প্রবৃদ্ধির হার দাঁড়ায় ২০.০%।

ব্যাংক ২০২০ সালে ট্যাক্স পূর্ববর্তী নীট মুনাফা অর্জন করে ৯ হাজার ৬৬০.৮ মিলিয়ন টাকা যা পূর্ববর্তী বছরে ছিল ৭ হাজার ৪৩৬.৩ মিলিয়ন টাকা এবং ট্যাক্স পরবর্তী নীট মুনাফা অর্জন করে ৫ হাজার ৪৯৮.৭ মিলিয়ন টাকা যা পূর্ববর্তী বছরে ছিল ৪ হাজার ৩৪১.৪ মিলিয়ন টাকা। চলতি বছরে শেয়ারহোল্ডারদের ১০ টাকার শেয়ার প্রতি আয় হয়েছে ৭.৮৯ টাকা। ২০২০ সালের শেষে ব্যাংকের মূলধন ও ঝুঁকিভর সম্পদের অনুপাত দাঁড়িয়েছে ১৭.২%। যা বাংলাদেশ ব্যাংকের নিয়ম অনুযায়ী সর্বনিম্ন ১২.৫০% থাকা বাঞ্ছনীয়।