জেনে নিন সুখী দম্পতি চেনার উপায়

6

অনেকেই তাদের প্রেমের সম্পর্কের কথা সোশ্যাল মিডিয়ায় সরাসরি প্রকাশ করতে পছন্দ করেন। এ ধরনের মানুষ আমাদের চারপাশে ছড়িয়ে রয়েছেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় বেশিরভাগ মানুষ নিজেদের অন্তরঙ্গ ছবি প্রকাশ করতে ভালোবাসেন। কিন্তু এমন অনেক মানুষ রয়েছেন যারা নিজেদের ভালোবাসার সম্পর্ককে আড়ালে রাখতে বেশি স্বাচ্ছন্দ্যবোধ করেন। সোশ্যাল মিডিয়ার লাইমলাইটে নিজেদেরকে তুলে ধরতে আগ্রহী নন তারা। প্রকৃতপক্ষে সুখী মানুষরা ভালোবাসার সম্পর্ককে ফেসবুকে বা টুইটারে প্রকাশ করেন না।

৫ কারণে এসব মানুষ সোশ্যাল মিডিয়া থেকে নিজেকে দূরে রাখতে চান-

প্রভাবিত হতে চান না

যেসব মানুষ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভালোবাসার সম্পর্কের ব্যাপারে কিছু বলেন না সেসব মানুষ মূলত অন্য মানুষের দ্বারা প্রভাবিত হতে চান না। সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের অন্তরঙ্গ ছবি প্রকাশ করলে অনেকে অনেক কথা বলবে- কেউ প্রশংসা করবে, কেউ নিন্দা করবে, আবার ইনবক্সে এসে অনেকে ভালোবাসা বিষয়ক পরামর্শও দেবে। নিজেদের সম্পর্ক ধরে রাখার জন্য সুখী মানুষেরা কারও কথায় প্রভাবিত হন না।

নার্সিসিস্ট নন তারা

বস্তুত সোশ্যাল মিডিয়ার বেশিরভাগ ব্যবহারকারীই নার্সিসিস্ট। অন্যদেরকে নিজের অর্জনের কথা জানানো এবং ভালোবাসার মানুষকে দেখানোর মধ্যেই তারা স্বস্তি খুঁজে পান। কিন্তু এমন অনেকে রয়েছেন যারা প্রেমের সম্পর্কের ব্যাপারে সোশ্যাল মিডিয়ায় কোনো কথা বলতে চান না। তারা সহজে কারও কথায় প্রভাবিত হন না এবং নিজেদেরকে দেখানোর আকাঙ্ক্ষা তাদের মধ্যে নেই। তাই সুখী মানুষেরা সোশ্যাল মিডিয়ায় ভালোবাসার সম্পর্কের কথা শেয়ার করতে চান না।

বর্তমান নিয়ে ভাবেন তারা

সুখী মানুষের ভালোবাসার কথা নিজেদের মধ্যেই থাকে। কোথাও ঘুরতে গেলেও তারা সোশ্যাল মিডিয়ায় সে কথা প্রকাশ করেন না। কারণ তারা মনে করেন আনন্দ উপভোগের বিষয়, অন্যদের জানানো জরুরি নয়। এসব মানুষ ভবিষ্যতের অলীক কল্পনা না করে বর্তমান নিয়ে ভাবেন।

নিরাপত্তাহীনতা থেকে বাঁচতে চান

বলার অপেক্ষা রাখে না যে সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহারকারীরা একে অন্যের ব্যাপারে প্রতিযোগিতা করতে থাকেন। বেশিরভাগ ব্যবহারকারীই নিজেকে অন্যের চেয়ে ভালো অবস্থানে রাখতে চান। সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে অনেকেই নিরাপত্তাহীনতায় ভোগেন। এই নিরাপত্তাহীনতা থেকে বাঁচার জন্য সুখী মানুষেরা সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেদের কম প্রকাশ করেন।

সোশ্যাল মিডিয়ার ওপর নির্ভর করেন না তারা

সুখী মানুষেরা সোশ্যাল মিডিয়ার ওপর নির্ভর করেন না। ভালোবাসার সম্পর্কে সফল হতে চাইলে সোশ্যাল মিডিয়ার ব্যবহার কমিয়ে দেওয়া আবশ্যক। অনেক সুখী মানুষ সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে সময়ের অপচয় করতে চান না। নিজেদের অন্তরঙ্গ ছবি প্রকাশের মাধ্যমে অন্যদের হিংসার কারণও হতে চান না তারা।