বই মেলায় অধ্যাপক তাজুল ইসলামের ‘ম্যুড ডিজঅর্ডার’

47

অধ্যাপক ডা. তাজুল ইসলাম, একজন মনোরোগ বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও দেশের স্বাস্থ্য বিষয়ক অন্যতম জনপ্রিয় লেখক। প্রায় ত্রিশবছর ধরে মনোসামাজিক স্বাস্থ্য সম্পর্কে জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে জাতীয় দৈনিক ও স্বাস্থ্য সাময়িকীগুলোতে নিয়মিত লেখালেখি করছেন।

‘মনের সুখ মনের অসুখ’, ‘মন ও মানুষ’, ‘শিশু বিকাশ ও শিশু-কিশোরদের মানসিক সমস্যা’, ‘মাদকাসক্তি’ ইত্যাদিসহ তার মোট বইয়ের সংখ্যা ১৯টি। প্রতি বছরের ধারাবাহিকতায় এবছরও বই মেলায় প্রকাশিত হয়েছে স্বাস্থ্য খাতের জনপ্রিয় এই লেখকের ‘ম্যুড ডিজঅর্ডার’ নামক একটি বই।

নতুন বই সম্পর্কে জানতে চাইলে অধ্যাপক ডা. তাজুল ইসলাম বলেন, ‘ম্যুড ডিজঅর্ডার’ বইটি মূলত মানুষের আবেগের নানা দিক নিয়ে আলোচনা করা হয়েছে। সব মানুষেরেই আবেগ আছে। তা কখনওই স্থির নয়। কখনও উদ্ধমুখী আবার কখনও নিম্নমুখী হয়, ম্যুড সুইং করে। আবেগের এই উঠানামা রোগ হিসেবে আসতে পারে।’

‘দীর্ঘদিন ম্যুড অফ থাকলে আমরা তাকে ডিপ্রেশন বলি, আবার ম্যুড উর্ধ্বগামী হলে তাকে আমরা ম্যানিয়া বলি। ডিপ্রেশনে যা হয় ম্যানিয়াতে তার উল্টোটা হয়। ডিপ্রেশনে যেমন ঘুমহীনতা, খাবারে অনিহাসহ ব্যক্তিকে হতাশায় নিমজ্জিত রাখে। ম্যানিয়াতে একজন মানুষ সার্বক্ষণিক আনন্দে থাকে, কথা বেশি বলে, খাওয়া-দাওয়া বেশি করে এবং নিজেকে বড় বড় ভাবে। বিষন্নতা ও ম্যানিয়ার আরও অসংখ্য শাখা-প্রশাখা রয়েছে। এই সব বিষয় নিয়ে বইটিতে আলোচনা করা হয়েছে।’

‘ম্যুড ডিজঅর্ডারের বায়োলজিক্যাল, মনষতাত্ত্বিক ও সামাজিক কারণ রয়েছে। কী কী ধরণের মুড ডিজঅর্ডার হতে পারে, কিভাবে সেটা প্রকাশ পায়, কোনটার কী লক্ষণ তার বিজ্ঞানভিত্তিক ও মেকানিজম নিয়ে বইয়ে বিস্তারিত আলোচনা করা হয়েছে।’ যোগ করেন অধ্যাপক তাজুল।